FriendsDiary.NeT | Friends| Inbox | Chat
Home»Archive»

জোনাকির আলোর রহস্য

জোনাকির আলোর রহস্য

*

সন্ধ্যার পর নেমেছে রাতের আঁধার। চাঁদটা লুকিয়েছে মেঘের আড়ালে। ফুলের ঝোপে হঠাৎ এক দল সবুজ-সোনালি আলো দৌড়াদৌড়ি শুরু করল। একবার জ্বলছে, একবার নিভছে।

সন্ধ্যার পর নেমেছে রাতের আঁধার। চাঁদটা লুকিয়েছে মেঘের আড়ালে। ফুলের ঝোপে হঠাৎ এক দল সবুজ-সোনালি আলো দৌড়াদৌড়ি শুরু করল। একবার জ্বলছে, একবার নিভছে।


এই চমৎকার আলোর বলটা মূলত জোনাকি পোকা। জোনাকি পোকার নাম শোনেনি এমন মানুষ কম, তবে দালানকোঠার এই শহরে জোনাকি পোকা খুঁজে পাওয়া প্রায় অসম্ভব। তাই গ্রামের নিঝুম রাত যারা উপভোগ করেনি কখনও, তাদের কখনও দেখা হয়নি জোনাকির আলোর খেলা।

জোনাকির আলো দেখে কখনও হয়তো কারও মনে প্রশ্ন জাগে, কেন ওদের গা থেকে আলো জ্বলে? ছোটরা ভাবে জোনাকি হয়তো ম্যাজিক জানে।
আসলে কি ম্যাজিক জানে? কীভাবে ওদের গায়ে আলো জ্বলে?

মূলত জোনাকির শরীরে লুসিফেরিন নামক এক ধরনের রাসায়নিক পদার্থ থাকে। এদের শরীরে যখন বাতাস প্রবেশ করে, তখন বাতাসে থাকা অক্সিজেন এই লুসিফেরিনের সঙ্গে বিক্রিয়া করে আলো উৎপন্ন করে।

এই যে প্রক্রিয়াটার মাধ্যমে জোনাকি পোকা আলো জ্বালায়, এটাকে বলা হয় বায়োলুমিনেসেন্স। আরও একটা মজার কথা হলো, আমরা জানি আলো সাধারণত তাপ উৎপন্ন করে। কিন্তু জোনাকির আলো থেকে খুব সামান্য পরিমাণ তাপ উৎপন্ন হয়। সেজন্য জোনাকির আলোকে বলা হয় ‘ঠাণ্ডা আলো’।

জোনাকির আলোর রহস্য এটুকুই।(সংগৃহীত)

*




2 Comments 140 Views
Comment

© FriendsDiary.NeT 2009- 2020