Post Archive
FriendsDiary.NeT |Friends|Inbox|Chat
Home»Archive»দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায়
দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায়

*


মাঝে মধ্যে দাঁতের ব্যথায় কুপোকাত হয়ে যাই আমরা। বিশেষ করে গভীর রাতে দাঁতের ব্যথা যেন এক ভূতের মতোই চেপে বসে শরীরে। ওই পরিস্থিতি সামলে নেয়া বেশ কঠিন হয়ে উঠে।

হাতের কাছে ওষুধ না পাওয়া, চিকিৎসকের কাছে যেতে না পারা এসব বিষয় পরিস্থিতি আরো জটিল করে তোলে। তবে ওই সময় কিছু ঘরোয়া টিপস অবলম্বন করলে দাঁতের ব্যথা অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে আনা যায়।


* লবণ পানি দিয়ে কুলি করা : দাঁতের ব্যথা শুরু হলে প্রথমেই কুসুম গরম পানিতে ১/২ চামচ লবণ মিশিয়ে কুলি করলে উপকার পাওয়া যায়। এতে দাঁতে আটকে থাকা খাদ্যকণা বের হয়ে যায়। মাড়ির ক্ষত থাকলে তা সেরে যায়।

* হাইড্রোজেন পারঅক্সাইড : ঘরে হাইড্রোজেন পারঅক্সাইড থাকলে তা দিয়ে পানিতে ভালোভাবে মিশিয়ে কুলি করলে দাঁতৈর ব্যথা কমে। দাঁতের প্লাক ও মাড়ির রক্ত ঝরা কমাতেও সাহায্য করে হাইড্রোজেন পারঅক্সাইড। এক্ষেত্রে ৩ শতাংশ হাইড্রোজেন পারঅক্সাইডের সঙ্গে একই পরিমাণ পানি মিশিয়ে কুলি করতে হবে। এই দ্রবণ পেটে যাতে না যায় সেটা খেয়াল রাখতে হবে।

* বরফ বা ঠান্ডা পানি : দাঁত ব্যথা কমাতে বরফ বা ঠান্ডা পানির ছ্যাঁক দিলে উপকার পাওয়া যায়। মাড়ি ফুলে যাওয়াও রোধ হবে এতে।

* ব্যবহৃত টি ব্যাগ : চা তৈরির পর ব্যবহৃত হালকা গরম টি ব্যাগ ব্যথা করা দাঁত বা মাড়িতে ধরলে ব্যথা অনেকটাই কমে।

* রসুন : হাজার বছর ধরে রসুন শরীরের জন্য একটি উপকারী মসলা হিসেইে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। দাঁতের প্লাক রোধ করা, এমনকি দাঁতের ব্যথা রোধ করতে ভূমিকা রাখে রসুন। এক্ষেত্রে এক কোয়া রসুনকে বেটে পেস্ট তৈরি করে তা ব্যথা হওয়া দাঁত বা মাড়িতে লাগালে উপকার পাওয়া যায়। সঙ্গে অল্প একটু লবণও মেশাতে পারেন। এছাড়া এক কোয়া রসুনও খেয়ে উপকার পাবেন।

* লবঙ্গ : দাঁতের ব্যথায় লবঙ্গের তেল তুলোয় নিয়ে আলতো করে লাগাতে পারেন ব্যথার জায়গায়। লবঙ্গের তেল ও পানি মিশিয়ে তা দিয়ে কুলি করতে পারেন।

* পেয়ারার পাতা : দাঁত ব্যথায় পেয়ার পাতা উপকারি ভূমিকা রাখে। পরিষ্কার পেয়ারার পাতা চিবাতে পারেন অথবা গরম পানিতে পেয়ারার পাতা বেটে মিশিয়ে তা দিয়ে কুলি করতে পারেন।

* বালিশ উঁচু করে শোয়া : রাতে দাঁত ব্যথা বেড়ে গেলে বালিশ উঁচু করে ঘুমানোর চেষ্টা করুন। এতে ব্যথা কমতে পারে।

সেনসিটিভ দাঁতের জন্য বিশেষ ভাবে তৈরি টুথপেস্ট ব্যবহার করুন। আর দাঁতের ব্যথা পুষিয়ে না রেখে শিগগিরই ডেন্টিস্টের সঙ্গে দেখা করতে হবে আপনাকে।

[Collected]
0 Comments 38 Views


0/0