Post Archive
FriendsDiary.NeT |Friends|Inbox|Chat
Home»Archive»💜চৌদ্দয় চৌদ্দ ধোনী💜
💜চৌদ্দয় চৌদ্দ ধোনী💜

মহেন্দ্র সিংহ ধোনি নিয়ে লেখালেখি করতে গিয়ে বহুবার আমাকে বহু প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছে, কখনো প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন প্রিয় শিক্ষক, কখনো প্রিয় দাদারা আবার কখনোবা প্রিয় বন্ধুরাই,
আচ্ছা তোমরা সারাদিন যে ফেসবুকে ধোনি ধোনি করে বেড়াও ধোনি কি আদৌ তোমাদের চেনে ?
ধোনির সমালোচনাটা নিতে শিখলে না কেন ?
ফ্যান ভালো কথা, কিন্তু এভাবে কি কেউ কাউকে ভালোবাসে ?
পাগলামির তো একটা লিমিট থাকা দরকার ?
আরো অনেক প্রশ্ন, কিছু কিছু প্রশ্ন তীরের মতো শরীরে বিঁধেছে কিন্তু রিপ্লাইয়ে একটা স্মাইলি রিয়াক্ট ছাড়া কিছুই যায়নি ।
না কোন উত্তর নেই, এই ভালবাসার বর্ণনা বা এই পাগলামির কারন খুজে দেখা হয়নি, 'দেখতে চাই' ! এটাও মিথ্যা ।
আমার মনে হয় না বাংলা জুড়ে এমন কোন ধোনি ভক্ত নেই যাকে পরিবার আর বন্ধুদের তরফ থেকে চূড়ান্তভাবে খ্যাপানো হয় না শুধুমাত্র নিজের নামের সাথে Msdian শব্দ টা ব্যবহার করার জন্য ।
কিন্তু কেন এই পাগলামি ?
কেন এই ভালোবাসা ?
আমাদের পিছিয়ে যেতে হবে ১৪ টা বছর আগে ।
না, আজকের বিষয়বস্তু ধোনির মহাকাব্য সমান রেকর্ডবুকের নয়, আজকের লেখা ধোনির আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের ১৪ বছর পূর্ণতার সাথে সাথে অগণিত পাগল ভক্তদের জন্য ।
সেই সব পাগল ভক্ত যারা পরীক্ষার খাতার শেষ প্রান্তে খুব ছোট করে লিখে এসেছে "Ms Dhoni"
আরে ভাই এটা কি ধরনের পাগলামি ?
পরীক্ষার খাতায় ওই নামটা লেখার অর্থই বা কি ?
না খবরদার, আপনি এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে যাবেন না, তাহলে হয়তো আপনাকেও কোনদিন কেউ পাগল ধোনি ভক্ত বলে ডাকবে ।
নেলপলিশের ওপর ধোনির নাম
গাছের পাতায় ধোনির নাম
বইয়ের ভিতর ধোনির নাম
ডায়েরির মধ্যে ধোনির নাম
ফেসবুক জুড়ে ধোনির নাম
হাত কেটে ধোনির নাম
ট্যাটু করে ধোনির নাম
ব্রেড রুম জুড়ে ধোনির নাম
মস্তিষ্কের প্রত্যেকটা শিরা-উপশিরা তে ধোনির নাম ।
ভালোবাসা,আবেগ,পাগলামি যেখানে মিলেমিশে একাকার হয়ে যায় সেখানেই "মহেন্দ্র সিংহ ধোনি" লেখা হয় ।
আপনি চেষ্টা করে দেখুন, এই ভালবাসার রং খুঁজে পাবেন না, এই ভালবাসার জাত চিহ্নিত করতে পারবেন না ।
এদের দেখে হয়তো অনেক হেসেছেন আপনি, হয়তো এই পাগলামি দেখে আবারও হাসবেন, কিন্তু কথা দিচ্ছি মিলিয়ে নেবেন, যে অপয়া সকালে মহেন্দ্র সিংহ ধোনি ক্রিকেটকে চিরবিদায় জানাবেন ঠিক সে দিন থেকে আপনার চেনা, সর্বদা ধোনি নিয়ে বকবক করতে থাকা ওই পাগল বন্ধু টা একদম নিশ্চুপ হয়ে যাবে, হয়তো ফেসবুক ছেড়ে দেবে, নিজের ক্যারিয়ারের দিকে মন দেবে, বন্ধুমহলে নিয়মিত যাতায়াত বন্ধ করে দেবে, ঠিক তখন কোন এক আনকোরা সন্ধ্যায় বালের সমাজের সংজ্ঞা শিখে, অত্যন্ত সিরিয়াস হয়ে ওঠা আপনার পাগল বন্ধুটার কাঁধে হাত রেখে আপনি বলবেন, "ভাই ধোনি নিয়ে কিছু লেখ, তোর পাগলামি গুলো বড্ড মিস করছি রে" !

#Collected

*




2 Comments 158 Views


1/1