FriendsDiary.NeT | Friends| Inbox | Chat
Home»Archive»

#ইলুমিনাতি (part 5)

#ইলুমিনাতি (part 5)

*

আজ আমরা জানবো ৯/১১ কারা ঘটিয়েছে এবং এখানে তাদের লাভ কি হয়েছে? এর সাথে ইলুমিনাতি কিভাবে সম্পৃক্ত?
৯/১১ এর কারণ
★২০০০-২০০৮ সাল পর্যন্ত জুনিয়র বুশ ক্ষমতায় ছিলেন। তার ২০০০ সালে নির্বাচন এ ইলুমিনাতির হাত আছে বলে ধারনা করা হয়েছিল। যেমনটা টাম্প এর সময় হয়েছে। বুশ ছিলেন একজন কঠোর নেতা। তাই অনেক মানুষই তাকে পছন্দ করতেন না। ৯/১১ এর ঘটনা টা ঘটার পর সবাই ভেবে নেন এখন বুশ এর অবস্থান খুবই প্রয়োজন। এই সময় বুশ সব দোষ আল-কায়দা ও ওসামা-বিন লাদেন কে দেয়। এবং ওদের কে শাস্তির প্রতিশ্রুতি দিয়ে চরম জনপ্রিয়তা পায়। এতোটাই জনপ্রিয়তা পায় যে পরের নির্বাচনেও এই অনেকটা প্রভাব পরে।
এখানে এই নাটক টা করে এটা ছিল বুশ এর লাভ।
★এবার বলি ইলুমিনাতি এখানে কিভাবে জড়িত-
৯/১১ এর রেশ ধরে বুশ বিভিন্ন দেশে দখলদারিত্ব শুরু করে। এই রেশ ধরেই বুশ ইরাক এ আক্রমন করে। এই বলে যে সাদ্দাম এর কাছে মরনাস্ত্র আছে এবং সে ৬ ঘন্টার মোদ্ধে আমেরিকাতে আক্রমন করবে। এবং বুশ আরও বলেন যে, সে সাদ্দাম এর পতন করে সৈরাচারী শাসন বন্ধ করতে চান।
৬ ঘন্টার মোদ্ধে আক্রমন এর বাহানা করে স্বপ্নের শহর ইরাক এ ২ দিন টানা বিমান হামলা চালায়।
-গুড়িয়ে যায় স্বপ্নের বাগদাদ।
ইরাক ও ফিলিস্তিন থেকে এতো তেল চুরি করেছে যে তাদের আগামি ৩০০ বছর এর তেল এর চাহিদা পুরন করা যাবে।
সাদ্দাম থাকাকালে, ইরাকের ১ দিনার ছিল বাংলাদেশ এর ১২৫ টাকা। আর এখন আমাদের ১ টাকা সমান ইরাকের ১৫ দিনার।
বুঝে নিন, কিভাবে তেল চুরি হচ্ছে।
এখানে ইলুমিনাতির OWO( One World Order) এর উদ্দেশ্য অনেকাংশ বাস্তবায়ন হয়।
কিভাবে?
ইলুমিনাতি পুরো পৃথিবী তে শাষন করতে চায়। তাই সাদ্দাম এর মতো সৈরশাষক তাদের জন্য কাটা ছিল। তাই সাদ্দাম কে শেষ করলো
একই কাজ এখন উত্তর কোরিয়ার "কিম জন উন" এর সাথে করছে।
বুশ ইলুমিনাতির সাথে কিভাবে জড়িত?
২০০০ সালে প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর বুশ প্রথম মার্কিন One world order প্রস্তাব করে। যা ইলুমিনাতির মূল স্বপ্ন। বুশ এর পরে সব প্রেসিডেন্টরাই একই পথ ধরে কাজ করছে।
শুধু তাই না, বুশ ২০০৪ সালে আবার ক্ষমতায় আশার পর মার্কিন ১ ডলার এর নোট এ ইলুমিনাতির সাইন বা চিহ্ন বসায়। ইলুমিনাতির সাইন হলো একটি ত্রিভুজ ও তার ভেতরে একটি চোখ।
-উপরে আমি ১ ডলার নোট এর একটি ছবি দিয়েছি।
এখন আপনার মনে একটা প্রশ্ন আসতে পারে, ইলুমিনাতির এতো ক্ষমতা কিভাবে হয় যে তারা নিজের ইচ্ছা মতো দেশে প্রেসিডেন্ট বসাবেন?
শুধু বুশ না, বুশ এর পর প্রায় সব প্রেসিডেন্ট ই ইলুমিনাতির মনোনিত।
একটা মারাত্মক কথা কি জানেন?
আপনারা অনেকেই সিম্পসন্স কার্টুন দেখসেন।
অনেক জনপ্রিয় একটি কার্টুন। কিন্তু সেই কার্টুনে ভবিষ্যতে ঘটবে এমন অনেক মারাত্মক ঘটনার ইংগিত দেওয়া হয়েছে।
যামন,
*১৯৯৭ সালের একটি এপিসোড এ ৯/১১ এর ঘটনার ইংগিত আছে, সেখানে world trade center এ বিমান হামলা হয়েছিল।
*২০১৪ সালের বিশ্বকাপ এর ৩ মাস আগেই জার্মানির চেম্পিয়ন হওয়ার ইংগিত
*১৯৯৭ এ ইবোলা ভাইরাস আসাই ইংগিত, যেটা ২০১৪ তে সত্য হয়।
*২০০০ সালের একটি এপিসোড এ দেখায় ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হয়েছে।এখন আপনারা তা দেখতেই পাচ্ছেন।
এখানেই শেষ না
আজ আমরা আমেরিকাতে ইলুমিনাতির প্রভাব এবং OWO(One World Order) এর বাস্তবায়ন প্রণালী নিয়ে আলোচনা করবো।
-আগেই বলেছি যে, ১৩ টি ফ্যামিলি মিলে ইলুমিনাতিকে পরিচালোনা করে বলে ধারনা করা হয়। কিন্তু বাস্তবে তার সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে।তারা চায় তাদের গোষ্ঠী পৃথিবী শাসন করবে। এবং তারা অনেক আগে থেকে অন্তঃবিবাহের মাদ্ধোমে নিজেদের ব্লাডলাইন ঠিক রেখেছেন। এদের মোদ্ধে রথচাইল্ড ফ্যামিলি সভচেয়ে প্রভাবশালী।সুতরাং রথচাইল্ড ফ্যামিলির জেকব রথচাইল্ড(Jacob Rothschild) এর প্রভাব সবচেয়ে বেশি। তাকে বর্তমানে ইলুমিনাতির মূল পরিচারক বলা যায়।
-আমরা জানি, বিল গেটস বর্তমান পৃথিবী তে সবচেয়ে ধনী। তার মোট সম্পদ এর পরিমান প্রায় ৮৬.৭ বিলিয়ন।
কিন্তু রথচাইল্ড ফ্যামিলির মোট সম্পত্তি এর পরিমান জানেন?
প্রায় ৫০০ ট্রিলিয়ন( ১ ট্রিলিয়ন = ১০০ বিলিয়ন)
জানেন বাংলাদেশ সরকার এর এই ৫ বছর এর বাজেট কত?
৩.৭ ট্রিলিয়ন প্রায়।
আশা করি বুঝতে পারছেন তাদের সম্পত্তির পরিমান।
কিন্তু প্রশ্ন হলো তারা তাহলে এতো কম পরিচিত কেন?
কারন তারা ইলুমিনাতির শুরু থেকেই তাদের সম্পদ ঢাকতে পটু।
তারা আমেরিকাকে নিজেদের হাতের পুতুল বানালো কিভাবে?
এই গ্রুপ আমেরিকার রাজনীতি তে ভালো সম্পর্ক গড়ে তুলেছে। তারপর তারা ক্ষমতালোভী সরকারকে প্রচুর পরিমান ঋন দিয়েছে। এবং এখন ঋনের পরিমান এতোই বেড়ে গেছে যে আমেরিকার কনো রাজনৈতিক দলই তাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়া সাহস পাবে না।
আপনি কি জানেন আমেরিকায় ইহুদিদের(jewes) সংখা মোট জনসংখ্যার মাত্র ৭%। কিন্তু তারা আমেরিকার মোট সম্পদ এর ৫০% ভাগ সম্পদ এর মালিক। তাই এখন যদি আমেরিকান সরকার ইলুমিনাতির বিরুদ্ধে যায় তাহলে ২য় বিশ্বযুদ্ধে জার্মান এর মতো অবস্থা হবে।
এই বিষয়ে পরবর্তী পোস্ট এ আলোচনা করবো।
এনং ইলুমিনাতির সাইন নিয়ে ও আলোচনা করবো...
#collected

*




0 Comments 34 Views
Comment

© FriendsDiary.NeT 2009- 2020