FriendsDiary.NeT | Friends| Inbox | Chat
Home»Archive»

ইনট্রোভার্ট আমি সাথে এফডি!

ইনট্রোভার্ট আমি সাথে এফডি!

*

শুরুটা শুরু হয়েছিল ২৪শে মার্চ ২০১৬ তে। আম্মুর মোবাইলটা চালানো শিখেছি কেবল.. গ্রামে ওয়াইফাই / থ্রিজি ছিলনা, মোবাইল ডাটা দিয়েই হালকা পাতলা ব্রাউজিং করতাম.. কিভাবে ঠিক মনে নেই ফ্রীবেসিকের সন্ধান পাই - আরে এমবি ছাড়াই চলে দেখি! -yay-
সেখানে ওয়েবসাইটগুলো ঘুরতে ঘুরতে অদ্ভুত এক সাইটের খোজ পাই। তখন ওয়াপ কমিউনিটি সম্পর্কে কিছুই বুঝতাম না। -nobrain- প্রথম যাত্রাই কোনমতে রেজিস্ট্রেশন কমপ্লিট করি। লগইন করতেই - ওমা, এ দেখি এক নতুন জগত!
অজানা এ জগতে ঢুকতেই হঠাৎ কলিংবেলের শব্দ.. আম্মুর স্কুল ছুটি হয়েছে.. এখন তো আর মোবাইল চালানো যাবেনা! তাড়াতাড়ি লগআউট দিয়ে সেদিনের মতো বিরতি নিই.. পরদিন সাইটের ফিচারগুলো ঘাটাঘাটি করতে করতে তাবাস্সুম নামে একজনকে মেসেজ দিয়ে ফেলি.. মেয়েটা কে ছিল বা এখনো এখানে আছে কিনা জানা নেই.. তবে উনার হাত ধরেই এফডি জীবনের সূচনা.. এভাবে ফিমেল অনলাইনে যেতে থাকি মেয়েদের সাথে ফ্লার্টিং চলতে থাকে হেহে.. -flirt-একসময় পরিচয় হয় সুমাইয়া আপুর সাথে.. আপুর সাথে আস্তে আস্তে অনেক ক্লোজ হয়ে যায়.. মজার ব্যাপার আপুর এখানে যাত্রা শুরু হয় আমি আসার ঠিক পরেরদিন থেকে! মাঝখানে কিছু মনে নেই.. পরবর্তীতে সাহেবা সরকার নামে এক বড় আপুর সাথে পরিচয় হয়.. আমি জানিনা আমার থেকে ৭/৮ বছরের বড় এক আপুর সাথে সারাদিন কি কথা বলতাম! আপু এতটাই ঘনিষ্ঠ ছিল যে আমরা তুই তুকারি করা শুরু করি.. এভাবে ভালোই দিন কাটছিল যতদিন না ওয়াসিফ আহমেদ নামে এক ভিলেনের আবির্ভাব হয়.. -devilfry-সাহেবা আপু ওর সাথে কথা বলা শুরু করে.. যেটা আমি কিছুতেই মানতে পারিনা.. -nono-এ নিয়ে কত অভিমান, মন খারাপ - এখন ভাবতেই হাসি পাই.. -hehe- যাইহোক তখন অষ্টম শ্রেণীতে পড়তাম জেএসসি নামের এক প্যারা দরজার সামনে এসে হাজির! এফডির চক্করে আর সাহেবা আপুর জাদুতে পড়াশোনা একদম লাটে উঠেছিল.. তাই বলে কি এফডি ছেড়ে থাকা যায়! যাইহোক সে যাত্রাই ওন রিকুয়েষ্টে ব্যান নিয়েছিলাম বলেই জেএসসি টা পার হয়েছিল.. রেজাল্টের হাত থেকে রেহাই পেতে বোনের বাসা যশোরে গিয়েছিলাম।-hex- রেজাল্ট ভালো হওয়ায় ফুরফুরা মনে দুলাভাইয়ের সাথে ওটি তে বসে ছিলাম.. .party2.অপারেশন শুরু হলে ভাই অন্য এক ফাকা রুমে আমাকে পাঠিয়ে দেয়.. সেখানে একা মনের শুখে হাওয়া খাচ্ছি আর এফডি চালাচ্ছি..-yoyo- এসময় অবুঝবালিকা নামে এক নতুন মেয়েকে অনলাইনে দেখি.. মেসেজ দিতে থাকি.. শুরু হয় আরেক নতুন অধ্যায়। যে অধ্যায়টা ছিল অনেক গভীর আমার প্রথম অনুভূতির বহিঃপ্রকাশ.. যেটা শুরু করলে বোধকরি আজ রাতে শেষ হবেনা। এর মাঝে জ্যোতি, নয়নতারা আরো অনেক বান্ধবীর সাথে পরিচয় হয়.. কালের গর্ভে আজ কারোর সাথেই আর যোগাযোগ নেই.. -xcry- এভাবেই এফডির প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ি..
সেসময় ভার্চুয়াল জগতে এসব করলেও বাস্তব জীবন ছিল ঠিক তার উল্টো.. ষষ্ঠ শ্রেণীতে পুরো ১ বছর ক্যাডেট কোচিংয়ের জন্য রাজশাহী উপশহরে ছিলাম.. পুরোটা বছর একটা বিল্ডিংয়েই কয়েদির মতো বন্দি ছিলাম.. কোচিং শেষে বাড়ি ফিরে আর অভ্যাসটা ত্যাগ করতে পারিনি..-sad- আস্তে আস্তে এভাবেই ইনট্রোভার্টদের দলে নাম লিখাই.. স্কুলে যায়, বাড়িতে এসে ভাইসসিটি খেলি, -play- পড়ি আর ঘুমাই.. এই ছিল ডেইলি রুটিন.. কিন্তু এই রুটিনেরও মোড় ঘুরলো.. যখন পড়াশোনায় সবাইকে টোপকে গেলাম টিচাররা অন্যদের কাছে আমাকে আইডল বানাতো -idol- বন্ধুদের সাথে আড্ডা দেওয়া শুরু করলাম তখন ইনট্রোভার্টদের খাতা থেকে নাম উঠিয়ে কখন যে এক্সট্রোভার্ট হয়ে যায় বুঝে উঠতে পারিনি! ওই একটা বছরই ছিল আমার কাছে স্বর্ণযুগ..-happy8- এরপর ঢাকা আসি.. নতুন পরিবেশ, নতুন স্কুল, সবাই পুরাতন মাঝে শুধু আমি নতুন! :( আবার একাকি হয়ে পড়ি.. তবে হ্যা এই একাকিত্মতা ছিল মঙ্গলের।-yes- এই একাকিত্মের সঙ্গী ছিল এফডি.. আমার মনে আছে তখন এফডির সিএসএস আর কয়েকটা পেজের সোর্স কোড নিয়ে নিজের মতো করে শুধু লিখাগুলো চেঞ্জ করতাম.. কোডগুলো না বুঝলেও মজা পেতাম অনেক.. -happy-এরপর ইউটিউবের কল্যাণে সি প্রোগ্রামিং শুরু করি.. বেশ কিছু প্রোগ্রাম বানাই কিন্তু এসব প্রোগ্রামে আর মন বসেনা.. তারপর ঢুকে পড়ি ওয়েব ডেভেলপমেন্টের দুনিয়ায়.. শিখা শুরু করলাম এইচটিএমএল, সিএসএস, পিএইচপি.. :pc:এসব শিখতে শিখতে মাথায় ভুত চাপলো এফডির হুবহু কোন কিছু বানাবো.. -idea-তখন এফডির জোড়-বেজোড় গেম কোড করার চেষ্টা করেছিলাম.. এরপর এফডির মতো হুবহু রেজিস্ট্রেশন, লগিন সিস্টেম এসব বানাতে থাকি.. সাইন্স ফেয়ার বা যেকোন ফেস্টে বন্ধুদের রেটিং সিস্টেম হাবিজাবি বানিয়ে দিতে থাকি.. বেসিক শেষে বিভিন্ন ফ্রেমওয়ার্ক নিয়ে কাজ শুরু করি.. এভাবেই চলছে.. প্রতিদিন নতুন কিছু না কিছু শিখছি.. যাইহোক অনেক কিছুই বলে ফেললাম..-boring1- শুধু মাল্টি খোলা নিয়ে কিছু বলা হয়নি.. যাক ব্যপার না.. -lolly- ডায়েরির নতুন সব পাতার ভিড়ে এসব পুরনো স্মৃতিগুলো আজ মুছে ফেলা হয়েছে.. জানিনা হয়তো কারণে বা অকারণেই -delete-

পরিশেষে যার জন্য এত আয়োজন আল্লাহ ভাইকে তার ক্ষমাপ্রাপ্ত বান্দাদের অন্তর্ভুক্ত করুক.. রঙিন এই টেকনোলজির যুগে সাদাকালো এফডি ছেড়ে দূরে চলে যাওয়ার চেষ্টা করেছি বহুবার! পারিনি, জানি পারবোও না..
এক অজানা মায়াজালে আটকে রেখেছে অজান্তেই যেন ভালোবেসে ফেলেছি তোমায়.. দীর্ঘজীবী হোক এফডি এ কামনায় করি.. -happy2-

*




25 Comments 290 Views
Comment

© FriendsDiary.NeT 2009- 2020