FriendsDiary.NeT | Friends| Inbox | Chat
Home»Archive»

স্মৃতির ডায়েরী

স্মৃতির ডায়েরী

*

২০১০ এর কোন এক বিকেল বেলা, মোস্তাকিম(আজাদী) বাসার সামনে দাড়ায় আছে। কোন এক বিশাল আবিস্কার করে ফেলছে সেটা দেখতে হবে।
এমনিতে প্রত্যেকদিন এভাবে আড্ডা দেয়াটা একটা অভ্যেস হয়ে গেছে। আগের মত ক্রিকেট খেলা হয়না, তাই বিকেল বেলা সাইকেলে করে নতুন নতুন রাস্তায় ঘুরতে যাওয়াটা আর রাজ্যের কথা বলাই এখন মিশন।
আজকের টপিক, আজাদির আবিষ্কার। নেটে নাকি লেখা যায়! আমরা লিখব সেই লিখা নেটের পাতায় পাতায় ভেসে থাকবে! চোখ বড় বড় করে বললাম, ‘কস কি’!!



নিজের মধ্যে সুপার ইন্টেলিজেন্ট টাইপ একটা ভাব চলে আসছিল, কারন তখন পর্যন্ত ইন্টারনেট মানে ayon.biz আর waptrick থেকে ওয়ালপেপার আর রিংটোন ডাউনলোড। স্মার্ট ভাবার কারনও আছে, তখনো অনেকেই গ্রামীফোন থেকে ওয়ালপেপার আর প্যা পু মার্কা রিংটোন ডাউনলোড দিত। গ্রামীণফোন থেকে ১০ টাকায় একটা ওয়ালপেপার ডাউনলোড করা মানুষদের দিকে বাকা হাসি দিয়ে ভাবতাম আরেহ এই টাকায় আমি ১০ টা ডাউনলোড দিতে পারি।


আজাদির এমন বিশাল আবিস্কারের পরেও BDF এ আইডি খোলা হয়নি, কারন তখন পর্যন্ত আমার ধারনা ইন্টারনেটে টাকা কাটে সময় হিসেবে, মানে যত সময় ওয়েব ব্রাউজার অন ততক্ষন টাকা কাটতে থাকবে। তাই আইডি খোলার প্রশ্নই আসেনা। তাই আমি তখনো ডিরেক্ট লিংক ইউজ করে হাবিবের গান ডাউনলোডেই ব্যাস্ত সময় কাটাই।


এরপর আমি আর আজাদী একি মেসে উঠলাম। আজাদীর পিড়াপিড়িতে বডিএফে আইডি খুললাম, Splash. যেহেতু আমি হাবিবের পাগলা ফ্যান ছিলাম আর মেরিল স্প্ল্যাশের জিঙ্গেলটাই ছিল সেই সময় লেটেস্ট গান (আমি তখন পর্যন্ত জানতামনা এটা বিজ্ঞাপনের গান), সেখান থেকেই Splash নামটা নেয়া। মাত্রই সাইটটা এক্সপ্লোর করা শুরু করলাম, হঠাৎ স্ক্রিনে দেখি Banned! Multi ID of Native! :(
(অবশ্য অবাক হইনি, অবাক না হবার কারন মোস্তাকিমের আর্কাইভ থেকে এতক্ষনে সবাই জানেন)।


এখানেই পি এম এ কেউ একজন (সম্ভবত joddha) আমাকে এফডির এড্রেস দেয়, সাথে সাথেই বেড়াতে আসি এখানে, আইডি Splash। একটিভ মেম্বার এখানে তখন অনেক কম ছিল, তাই স্বাভাবিক ভাবেই আর আসা হয়নি।


Bdf এ চার বছরের যোগফলে অনেক সময় দিলেও অন্যদের মত অতটা একটিভ থাকতাম না। মোবাইলে মুখ ডুবায় রাখতে ভাল লাগেনা, তাই ধিরে ধিরে ইনেকটিভ হয়ে যাই। এর মাঝে আমি বিশ্ববিদ্যালয়ে যাত্রা শুর করি, আর অফলাইনেই বন্ধু আর ঘোরাঘুরি নিয়ে ব্যাস্ত হয়ে যাই। ইউনিভার্সিটির আগের আমি আর পরের আমির মাঝে অনেক পার্থক্য আছে। আগে ছিলাম ইন্ট্রোভার্ট, পরে অনেকটাই বদলে গেছি। তাই অনলাইনের থেকে অফলাইন আমাকে বেশি টানে।


৩ বছর পর...……


মোস্তাকিম এখনো আগের মতই মোবাইলে না হয় ল্যাপটপের পিছে লেগে আছে। কোথাও ঘুরতে যেতে বললেও যায়না, বেশিরভাগ সময় ফোরামেই ব্যাস্ত। ওর সুবাদেই জানলাম রকারওয়াপ এখন ফ্রেন্ডস ডায়রী। অর এত আগ্রহের কারনেই ভাবলাম একদিন আইডি খুলে দেখতে হবে।
কৌতুহল নিয়ে যেদিন আইডি খুলতে গেলাম স্প্ল্যাশ নিক দিয়ে, দেখি কে যেন আইডী খুলছে এই নিকে। আমি আসলে ভুলেই গেছি যে পৌরাণিক যুগে এখানে আমি নিজেই আইডিটা খুলে গেছি।
বাধ্য হয়ে ভিন্ন নামে নতুন আইডী খুলে একটা শাউট দিলাম, ‘Splash নিকটা কে জানি দখল করছে :( ‘। এর পরপরই হিমুর পিএম, ‘ভাই কি বিডিএফের Splash?’


হিমুর সাথে কথা বলতে বলতেই জানতে পারলাম Ikhtiar এর কল্যানে himuর সাথে আমার দেখাও হইছে (আমার মেসে আসছিল)!! আমার ভাব বাইড়া গেল, ফোরামের স্টাফ আমার ছোট ভাই!!!! ওরে বললাম Splash আইডি উদ্ধার করে দেও। কিছুক্ষনের মাঝেই পাসওয়ার্ড পেয়ে গেলাম।


কিন্ত এই দফা টিকতে পারলাম না, কারন হাতির বাচ্চা স্টাফ! শয়তানে যখন পাওয়ার পায় তখন যা হয় আর কি। হাতির মাথায় কোন ভুত যে চাপল, সমানে কিক দেয়া শুরু করল। কিক দেয়ার পেজটা অটো রিলোডে রেখে সম্ভবত ১০ সেকেন্ড (সময় কম বেশি হতে পারে) পরপর কিক দিত। বাধ্য হয়েই আসা ছেড়ে দিলাম। :(


এরপর আসতাম মাঝে মাঝে, FDCC খেলতে। আসতাম বলতে আজাদী বাধ্য করত। সময় হলেই নক দিয়ে বলত ম্যাচ আছে। সেই সময় Eshapu ও আমাকে মনে করায় দেয়ার দায়িত্ব নিছিল, সময় হলেই কল দিয়ে শুধু একটা লাইন বলত,”ভাইয়া, আজকে ম্যাচ’ :P । এভাবেই আসা আর যাওয়া চলল ২০২০ এর জানুয়ারী পর্যন্ত।


এফডি তে আমার জার্নিটা কিছুটা এরকম - এলাম, দেখলাম, জয় করলাম।
ফেব্রুয়ারিতে অফিসে প্রমোশনের কারনে আমার কাজের চাপ কিছুটা কমে যায়, অবসর সময়ে সুযোগ পেলেই শাউট হিস্টোরি পড়ে চলে যেতাম, শাউট কম ই দিতাম কারন শাউট দিতে আলসেমি লাগে। :P এই সময়টা থেকেই একটিভিটি বাড়তে থাকে, আর সাথে আশির্বাদ হয়ে আসে COVID_19. অবশ্য করোনা না থাকলেও হয়ত এভাবেই একটিভ থাকতাম, কারন Quiinn. :P :P


গল্পটা শুধুই শুরুর, তাই এই শুরুর দিনগুলোতে ঘটনার প্রয়োজনে যেই নামগুলো আসে শুধু তাদের নাম ই নিলাম। যারা ভাবতেছে আমার নাম নাই কেন তাদের বলি, শুরুর দিনে তোরা/ তোমরা/ আপনারা ছিলেন না কেন? -dhil- মাঝের গল্প যেদিন লিখতে হবে সেদিন আমার গল্পে “যাদের নাম নেইনি ব্লা ব্লা ব্লা” এই অংশটুকু লেখার প্রয়োজন থাকবেনা।


যার জন্য এই গল্পের আয়োজন …………

J0mider, এই নামটার সাথে আমি পরিচিত। সম্ভবত বিডিএফে অনেক দেখছি। হয়ত কথাও হইছে কখনো, আমার মনে নেই :( । তবে একটিভ হবার পর যখন জানলাম তখন Mr-twist সব স্ট্যাটাস, টপিক পোস্ট খুজে খুজে পড়ছি আর পুরোনো দিনের কথা কল্পনা করার চেস্টা করছি। সে কিভাবে কথা বলত, শাউটে কি বলত, কার সাথে দুস্টামি করত, আর এখন কেমন আছে :(

বলতে গেলে ফোরামে এটাই আমার সবথেকে প্রিয় কাজ। পুরোনো পপুলার আইডিগুলোর স্ট্যাটাস, গেস্টবুক সাইন, টপিক পোস্ট পড়া। এক সময় যারা ফোরাম দাপিয়ে বেড়াতো, সবার পরিচিত মুখ ছিল, কত কথা, কত শাউট, কত ঝগড়া, অথবা বন্ধুত্ব, স্টাফ হবার জন্য কত লাফ ঝাপ!
আজ কেউ নাই, সবাই ভিন্ন এক জগতে ব্যাস্ত।

পুরোনোদের কেউ কেউ হয়ত ফোরামের এসব কথা ভেবে এখন হাসে আর ভাবে ‘কত অদ্ভুত ছিলাম, কত সময় নস্ট করছি’, অথবা কারো কারো হয়ত কিছুই মনে নেই। আমি এদের প্রোফাইলে ঘুরি, আর কল্পনায় নিজেকে ঈশাখার আমলে নিয়ে যাই।
-balone1-

*




22 Comments 334 Views
Comment

© FriendsDiary.NeT 2009- 2021